পিছিয়ে গেল জিওফোন নেক্সট লঞ্চের তারিখ! কবে লঞ্চ হবে?

রিলাইন্স জিও কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে পূর্বেই একটি ঘোষণা করা হয়েছিল, যেখানে তারা জানিয়েছিলেন ১০ সেপ্টেম্বর থেকে বিক্রি শুরু হবে তাদের নতুন জিও স্মার্টফোন জিওফোন নেক্সটের। তবে আপাতত স্থগিত রাখা হয়েছে সেই পরিকল্পনা। জিওফোন নেক্সট এর রোল আউট শুরু হবে দীপাবলীর আগে থেকে। বৃহস্পতিবার গভীর রাতে এমনই তথ্য সামনে নিয়ে এসেছে রিলায়েন্স। গত জুন মাসে রিলায়েন্স জিও কোম্পানির তরফ থেকে ঘোষণা করা হয়েছিল সবচেয়ে কম দামের এবং ফিচারস-এ ভরপুর জিওফোন নেক্সট গণেশ চতুর্থীর দিন অর্থাৎ সেপ্টেম্বরের ১০ তারিখে লঞ্চ হবে ভারতীয় বাজারে। তবে একটি প্রেস রিপোর্টে রিলায়েন্স কোম্পানির তরফ থেকে জানানো হয় বর্তমানে স্মার্টফোনটিকে আপগ্রেড করা হচ্ছে যে কারণে দীপাবলির আগে এটি ভারতীয় বাজারে লঞ্চ করা একপ্রকার অসম্ভব।

বিশ্বব্যাপী চলা মহামারীর কারণে সেমিকন্ডাকটরের ঘাটতি দেখা দিয়েছে। ঠিক এই কারণেই জিওর নতুন স্মার্টফোন বাজারে আনতে দেরি করছে রিলায়েন্স কোম্পানি। যদিও রিলায়েন্স কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে একটি ঘোষণা জানানো হয়- “অতিরিক্ত সময় নেওয়া হলো তা আমাদেরকে ফোনকে আপগ্রেড করার জন্য। এছাড়াও সেমিকন্ডাকটরের ঘাটতির কারণে পিছানো হয়েছে লঞ্চের দিন“।

রিলায়েন্স জিও কোম্পানির কর্ণধার মুকেশ আম্বানি জানিয়েছিলেন ১০ সেপ্টেম্বর তাদের নতুন এই স্মার্টফোনটি লঞ্চ করা হবে। যে স্মার্টফোন তৈরিতে সাহায্য করছে গুগল। স্মার্টফোনে থাকছে অ্যান্ড্রয়েড এবং গুগল প্লে-স্টোর। জিও ফোনের নির্দিষ্ট মূল্য ঘোষণা করা হলেও বিশেষজ্ঞদের মতে ফোনটির দাম হতে চলেছে ৩৪৯৯ টাকা।

রিলায়েন্স জিওর নতুন এই মোস্ট এফোর্ডবল অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোনে কি কি ফিচার আছে সেগুলো সম্পর্কে একবার জেনে নেওয়া যাক।

আরো পড়ুন-হোয়াটসঅ্যাপে আসতে চলেছে একগুচ্ছ নতুন ফিচার, রইল তালিকা

জিওফোন নেক্সট-এর ফিচার:

জিও ফোন নেক্সট স্মার্টফোনটিতে থাকছে অ্যান্ড্রয়েড ১১ গো এডিশন।

এই ফোনে একটি সিঙ্গেল রেয়ার ক্যামেরা এবং একটি ফ্রন্ট ক্যামেরা থাকার সম্ভাবনা রয়েছে।

ফোনটির প্রসেসর হতে চলেছে Qualcomm QM215।

ফোনের ডিসপ্লে হবে এইচডি ডিসপ্লে, ৫.৫ ইঞ্চি ডিসপ্লে সাইজ-এর সাথে।

জিওফোন নেক্সট এর ব্যাক প্যানেল এ ১৩ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা থাকতে পারে, ফ্রন্ট ডিসপ্লেতে থাকতে পারে ৮ মেগাপিক্সেল এর সেলফি ক্যামেরা।

ফোনটি দুটি ভেরিয়েন্ট-এ লঞ্চ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। একটি ২ জিবি RAM এবং ১৬ জিবি স্টোরেজ, অপরটি ৩ জিবি RAM এবং ৩২ জিবি স্টোরেজ।

ফোনটিতে একসঙ্গে দুটি সিমকার্ড ব্যবহার করা যাবে। সাথেই থাকবে ৪জি VoLTE সাপোর্ট।

ফোনের ব্যাটারি হতে চলেছে ২৫০০mAh। এছাড়াও থাকবে ব্লুটুথ ভি ৪.২, জিপিএস কানেক্টিভিটি এবং ১০৮০ পিক্সেলে ভিডিও রেকর্ডিং এর সাপোর্ট।

ফোনটিতে pre-installed থাকবে DuoGo এবং Google Camera Go। এছাড়াও থাকছে গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট এবং স্ন্যাপচ্যাট সাপোর্ট।

Leave a Reply