হোয়াটসঅ্যাপ: ২৯ লাখ ভারতীয় হোয়াটসঅ্যাপ একাউন্ট ব্যান! কারণ?

হোয়াটসঅ্যাপ: ভারত তথা বিশ্বব্যাপী জনপ্রিয় ইনস্ট্যান্ট মেসেজিং অ্যাপ্লিকেশন whatsapp। বর্তমানে সারা পৃথিবী জুড়ে লাখ লাখ মানুষ এই অ্যাপ্লিকেশনটি ব্যবহার করে। সমস্ত রকম কাজের ক্ষেত্রেই প্রয়োজন এই অ্যাপ্লিকেশন। এত বেশি ব্যবহারকারী হওয়ার জন্য হোয়াটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষর তরফ থেকে প্রায়শই নতুন নতুন আপডেট নিয়ে আসা হয়। আপডেটের কথা মাথায় রেখে ভিডিও কল, অডিও কল ছাড়াও বর্তমানে হোয়াটসঅ্যাপে যুক্ত হয়েছে কনফারেন্স কল ফিচারও।

সম্প্রতি এই হোয়াটসঅ্যাপ ২৯ লাখ ভারতীয় একাউন্ট ব্যান্ড করেছে। হোয়াটসঅ্যাপের দাবি এই অ্যাপের অপব্যবহার রুখতেই এই পদক্ষেপ নিয়েছেন তারা। হোয়াটসঅ্যাপে নিরাপত্তার জন্য রয়েছে একাধিক ফিচার। হোয়াটসঅ্যাপের এন্ড টু এন্ড এনক্রিপশন চ্যাটকে সবসময় গোপন রাখার চেষ্টা করে। Whatsapp-এ সিকিউরিটি রাখার জন্যই তারা এই কড়া পদক্ষেপ নিতে বাধ্য হয়েছে।

দীর্ঘদিন ধরেই হোয়াটসঅ্যাপ তাদের ইউজারদের জন্য একটি নিরাপদ মেসেজিং প্ল্যাটফর্ম তৈরি করার চেষ্টায় রয়েছে। এই কাজে তারা ব্যাবহার করছে আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স। ২০২১ সালের তথ্য প্রযুক্তি আইন মেনে চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে হোয়াটসঅ্যাপ তাদের এই রিপোর্ট সামনে এনেছে, যেখানে জমা পড়েছিল সুরক্ষা সংক্রান্ত একাধিক অভিযোগ। এই সমস্ত অভিযোগগুলি খতিয়ে দেখার পরেই হোয়াটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে তারা ২৯ লক্ষ ভারতীয় অ্যাকাউন্ট ব্যান্ড করছে। ১৯৫টি কেস খতিয়ে দেখার পর তারা এই পদক্ষেপ নিয়েছে। তারা জানিয়েছে বড় কোন বিপদ হওয়ার আগেই আটকানোর জন্য অ্যাকাউন্ট ব্যান করার দিকে এগিয়েছেন তারা।

Leave a Reply