জ্বলন্ত গাড়ি থেকে ঋষভ পান্থকে বার করেছিল কে? পড়ুন সেই কাহিনী

দিল্লি দেরাদুন জাতীয় সড়কে ভারতের উইকেট কিপার ব্যাটসম্যান ঋষভ পান্থ এর এক ভয়াবহ দুর্ঘটনাও ঘটে যেখানে ঋষভ পন্থের গাড়ি ৩-৪ বার পাল্টি খায় ও গাড়িতে আগুন ধরে যায়। যেভাবে অ্যাক্সিডেন্টটি ঘটে সেখান থেকে ঋষভ পন্থের বেঁচে ফিরে আসাটা একপ্রকার মিরাকেল বলা চলে। কিন্তু অ্যাক্সিডেন্টের পর কে ঋষভ পন্থকে জ্বলন্ত গাড়ি থেকে বাইরে নিয়ে আসে?। আজ তারই কথা বলবো, সেই বাস্তব হিরো প্রসঙ্গে।

জাতীয় সড়কে দুর্ঘটনার পর ঋষভ পন্থকে জলন্ত গাড়ি থেকে বাইরে নিয়ে আসে সুশীল কুমার নামক এক ব্যক্তি। তিনি হরিয়ানা রোডের একজন বাস ড্রাইভার, তিনি কৃষককে বাইরে নিয়ে আসে এবং একটি চাদর দিয়ে ঢেকে দেয়।
সংবাদমাধ্যমে সুশীল কুমার বলেছেন যে গাড়ি থেকে বের করার পর ঋষভ পন্থ তার মাকে ফোন করতে বলেন। কিন্তু তার মায়ের ফোন তখন সুইচ অফ ছিল।
এরপর তিনি অ্যাম্বুলেন্স কে কল করেন। এরপর অ্যাম্বুলেন্স ও পুলিশ এসে তাকে সাক্ষম হাসপাতাল মাল্টিস্পেশালিটি তে ভর্তি করানো হয় পরে ঋষভ কে ম্যাক্স হসপিটাল দেরাদুনে স্থানান্তরিত করা হয়।

জ্বলন্ত গাড়ি থেকে ঋষভ পান্থকে বার করেছিল কে? পড়ুন সেই কাহিনী
Image credit- unknown

আরো পড়ুন- মেসির অটোগ্রাফ লেখা জার্সি পরে জিভা সিং ধোনি

বিসিসিআই সংবাদ বিবৃতি অনুযায়ী, ঋষভ পন্থের কপালে দুটি কাটা রয়েছে, তার ডান হাঁটুতে একটি লিগামেন্ট ছিঁড়ে গেছে এবং তার ডান হাতের কব্জি, গোড়ালি, পায়ের আঙুলে আঘাত পেয়েছে এবং তার পিঠে ঘর্ষণে আঘাত পেয়েছে।

এরপর বিভিন্ন ক্রিকেটার বাস ড্রাইভার সুশীল কুমার কে ধন্যবাদ জানিয়েছেন সোশ্যাল মিডিয়াতে, ভিডিওস লক্ষণ ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করে লিখেছেন যে,
“সুশীল কুমারের প্রতি কৃতজ্ঞতা, একজন হরিয়ানা রোডওয়েজ চালক যিনি ঋষভপন্তকে জ্বলন্ত গাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গিয়েছিলেন, তাকে বিছানার চাদর দিয়ে মুড়িয়ে অ্যাম্বুলেন্সে কল করেছিলেন।
আপনার নিঃস্বার্থ সেবার জন্য আমরা আপনার কাছে অত্যন্ত ঋণী, সুশীল জি।”

“জ্বলন্ত গাড়ি থেকে ঋষভ পান্থকে বার করেছিল কে? পড়ুন সেই কাহিনী”-এ 1-টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন