ATM এর 4 সংখ্যা পিনের পেছনে রয়েছে এক ভালবাসার গল্প, ATM মেশিন এর আবিষ্কার

ATM মেশিন এর আবিষ্কার: বর্তমানে আমরা সবাই এটিএম কার্ড ব্যবহার করি এবং আমাদের সবার কাছে একটি চার সংখ্যার পাসওয়ার্ড থাকে যা এটিএম-এ গিয়ে টাকা তোলার সময় প্রয়োজন হয়। কিন্তু আপনি একটি বিষয় লক্ষ্য করে দেখেছেন এটিএম ছাড়া বর্তমানে সমস্ত জায়গায় 6 সংখ্যার পিন কোড বা পাসওয়ার্ড ব্যবহৃত হয়। সেটা ফোনের পাসওয়ার্ড থেকে অনলাইন লেনদেনের বিভিন্ন অ্যাপের পাসওয়ার্ড আপনি লক্ষ্য করে অবশ্যই দেখেছেন।

কিন্তু এটিএম মেশিনের এই 4 সংখ্যা কোড এর পেছনে রয়েছে এক ভালোবাসার গল্প। ATM (Automated teller machine) যা আবিষ্কার করেন স্কটিশ বিজ্ঞানী অ্যাড্রিয়ান শেফার্ড ব্যারন। যার জন্ম আবার ভারতেই। তিনি এটিএম কার্ডের পাসওয়ার্ডের জন্য ছয় সংখ্যা পিন তৈরি করেন। কিন্তু তার স্ত্রী সেই ছয় সংখ্যার পিন কোড কিছুতেই মনে রাখতে পারছিল না। সেই কারণে একপ্রকার বউয়ের কথা মেনেই 4 সংখ্যার পিন তৈরি করেন ওই বিজ্ঞানী।

1967 সালে এটিএম মেশিন আবিষ্কার হয় এবং তারপর থেকেই এটিএম কার্ডে 4 সংখ্যার তিন দ্বারা একটি পাসওয়ার্ড থাকে যা বর্তমানে একইভাবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। 1969 সালে প্রথমবার এটিএম মেশিন জনগণের দ্বারা ব্যবহৃত হয় আমেরিকাতে। যার ফলে টাকা পয়সা লেনদেনের জন্য আপনাকে আর ব্যাংকের চক্কর কাটতে হয় না।

Q&A: প্রশ্ন উত্তর

প্রথম ATM মেশিন কবে আবিষ্কৃত হয়?
  • ১৯৬৭ সালে।
প্রথম কবে জনগণের সামনে ATM মেশিন খোলা হয়?
  • ২ সেপ্টেম্বর, ১৯৬৯ সালে।
ATM মেশিন এর আবিষ্কারকের নাম কি?
  • অ্যাড্রিয়ান শেফার্ড ব্যারন।

আরো পড়ুন- Upcoming Bikes 2023: সালের সেরা ৫টি কমিউটার বাইক

“ATM এর 4 সংখ্যা পিনের পেছনে রয়েছে এক ভালবাসার গল্প, ATM মেশিন এর আবিষ্কার”-এ 1-টি মন্তব্য

Leave a Reply