পাবজি মোবাইল ভারত আপডেট: কি কি পরিবর্তন হচ্ছে গেমটিতে? কবে লঞ্চ হবে?

পাবজি মোবাইল ভারত আপডেট: কিছুদিন আগেই পাবজি মোবাইল তাদের অফিশিয়াল ইনস্টাগ্রাম ‘পাবজি মোবাইল ইন্ডিয়া’ একাউন্টের মাধ্যমে তাদের পুনরায় ভারতে প্রত্যাবর্তন এর খবর প্রকাশ করেছিল। এরপর এই দিনই পাবজি একটি ছোট ভিডিও  টেলার প্রকাশ করে যেখানে পাবজি-প্রো ডায়নামো, জনাথন ও ক্রনটেন গেমিং কে  দেখতে পাওয়া যায়। কিন্তু এখনো পর্যন্ত পাবজি মোবাইল ভারতের লঞ্চ তারিখ প্রকাশ করা হয়নি। সম্প্রতি পাবজি-প্রো ক্রনটেন গেমিং ইউটিউবে তার অনুগামীদের প্রশ্নের উত্তরে কিছু তথ্য পাওয়া যায়। তিনি বলেন যে ২০ তারিখের মধ্যে গেমটি লঞ্চ হয়ে যাওয়া উচিত ও গেমের কিছু পরিবর্তনের কথাও স্পষ্ট করেন। প্রসঙ্গত ভারতের কিছু পেশাদার প্রো খেলোয়াড়রা গেমটির বিষয়ে তাদের কাছে তথ্য থাকলেও তারা এখনো প্রকাশ্যে কিছু বলছে না। তো এখানে একটা কথাই স্পষ্ট পাবজি ভারতে খুব শ্রীঘ্রই ফিরে আসছে। যা পাবজি অনুগামীদের কাছে অত্যন্ত খুশির খবর। 

আরো পড়ুন- নতুন দল আসছে আইপিএল ২০২১শে। ৯টি দলের আইপিএল হতে পারে ২০২১ সালে।

পাবজি ভারতীয় সংস্করণে পরিবর্তনগুলি

পাবজি মোবাইল ভারতের প্রত্যাবর্তন ছাড়াও ভারতে পাবজি খেলোয়াড়দের জন্য আরও একটি খবর যা পাবজি খেলোয়াড়রা হয়তো আশা করেনি। ক্রনটেন গেমিং ইউটিউব চ্যানেল অনুসারে পাবজি কর্পোরেশন ভারতের পাবজি খেলোয়াড়দের তথ্য, গেমের ভেতরে পাওয়া বা টাকা দিয়ে কেনা জিনিসগুলি অর্থাৎ, পাবজি গেমের চরিত্র বা ক্যারেক্টার, বন্দুক গাড়ি প্লেনের রং, জামা কাপড় ইত্যাদি সবকিছুই নতুন ভারতীয় সংস্করনে স্থানান্তর করা হবে। ফলে আপনি যে আইডি দিয়ে পাবজি গ্লোবাল সংস্করণে খেলতেন সেই আইডি দিয়ে যদি ভারতীয় সংস্করণটিতে প্রবেশ করেন তবে আপনার পুরনো আইডির সমস্ত তথ্য পেয়ে যাবেন। অনেকেই গেমটির পেছনে প্রচুর টাকা খরচ করেছে সেই কারণেই পাবজি এরকম সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে মনেকরা হচ্ছে। যা পাবজি খেলার জন্য অত্যন্ত খুশির খবর। এই তথ্য সামগ্রী স্থানান্তরের কারনেই পাবজি লঞ্চ হতে কিছুদিন সময় লাগছে, সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী পাবজি ২০ নভেম্বর থেকে ২ ডিসেম্বর এর মধ্যে লঞ্চ হবে বলে খবর পাওয়া যাচ্ছে।

তথ্য স্থানান্তর ছাড়া ভারতীয় সংস্করনটিতে গেমটির কিছু পরিবর্তন করা হয়েছে। ভারতীয় সংস্করনে গুলির আঘাতে রং সবুজ করা হয়েছে ও পাবজি কর্পোরেশন গেমটির স্বাস্থ্যকর পরিবেশ গড়ে তোলার জন্য কম বয়সি খেলোয়াড় দের সময়সীমা বেঁধে দেওয়ার পরিকল্পনা করা হয়েছে। পাবজি ভারতে ১০০ মিলিয়ন ডলার বিনিয়োগের মাধ্যমে একটি অফিস ও ভারতের তথ্যপ্রযুক্তি বাজারে পদার্পণ করবে। ই-স্পোর্টস ইন্ডাস্ট্রিকেও পুনরায় চালু করা হবে। পূর্বেই পাবজি তাদের প্রকাশক দিকটি নিজেদের অধীনে নিয়েছে ও ও বর্তমানে তারা মাইক্রোসফটের ক্লাউড কম্পিউটার সিস্টেম অজুরের সার্ভার ব্যবহার করবে গেমটির পরিচালনার জন্য। 

পাবজি মোবাইল আনুষ্ঠানিকভাবে এখনো পর্যন্ত ‘coming soon’ কথাটি বলেছে। পাবজি ভারতে লঞ্চের নিদিষ্ট দিন এখনও ঘোষণা করেনি এবং লঞ্চের জন্য ভারত সরকারের অনুমতি নিতে হবে কিনা তাও স্পষ্ট নয়। যেহেতু ভারত সরকার পাবজিকে ভারতে নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছিল সেই কারণে মনে করা হচ্ছে পাবজির ভারতীয় সংস্করন লঞ্চের পূর্বে ভারত সরকারের অনুমতি নিতে হবে। এখন ভারতের সমস্ত পাবজি খেলোয়াড়রা নতুন ভারতীয় সংস্করনের টেলারের অপেক্ষা করছে। হয়তো আর কিছুদিনের মধ্যেই তা প্রকাশ করা হবে। 

পাবজি মোবাইলের সমস্ত আপডেটের জন্য আমাদের ওয়েবসাইটের বেল আইকনটিতে ক্লিক করুন।

Leave a Reply