মহাকাশে ভয়াবহ দুর্ঘটনা! স্যাটেলাইট বহনকারী রকেট আছড়ে পড়ল পৃথিবীতে

মহাকাশে ঘটে গেল এক ভয়াবহ দুর্ঘটনা। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের একটি বেসরকারি সংস্থার স্যাটেলাইট বহনকারী রকেট উৎক্ষেপণের পথেই প্রচন্ড বিস্ফোরণের ফলে ভেঙে পড়ে। মহাকাশে বিস্ফোরণের পর রকেট এর ধ্বংসাবশেষ আছড়ে পরে পৃথিবীতেই। প্রশান্ত মহাসাগরের উপরে টুকরো টুকরো হয়ে পড়তে থাকে রকেট এর ধ্বংসাবশেষ।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের একটি বেসরকারি সংস্থা DREAM। ওই সংস্থার এটি ছিল প্রথম পৃথিবীর কক্ষপথে কৃত্রিম উপগ্রহ উৎক্ষেপণ। তবে প্রথমবারেই ব্যর্থ হয় এই সংস্থা। রকেট উৎক্ষেপণের মাত্র আড়াই মিনিটের মধ্যেই ভেঙ্গে পড়ে তাদের রকেটটি। প্রাথমিক পরীক্ষা-নিরীক্ষায় সফলতা অর্জন করলেও উৎক্ষেপণের পর এমন দুর্ঘটনার কারণ খতিয়ে দেখছে সংস্থা।

IMG 20210905 24136
Image credit- @Firefly

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার ওই বেসরকারি সংস্থা ‘ALPHA‘ নামের একটি রকেট তৈরি করে। রকেটির ওজন ছিল ১০০০ কিলোগ্রাম এবং লম্বায় প্রায় ২৬ মিটার। সংস্থাটি পৃথিবীর সবচেয়ে কাছের কক্ষপথে স্যাটেলাইট নিয়ে যাওয়ার জন্য রকেটটি তৈরি করেছিল। সংস্থার পরিকল্পনা ছিল আলফা রকেটকে মাসে দুইবার কক্ষপথের পাঠানো। পরিকল্পনা মতোই গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টার সময় ক্যালিফোর্নিয়ার ভ্যানডেনবার্গ স্পেস ফোর্স বেস থেকে রকেট উৎক্ষেপণ করা হয়। উৎক্ষেপণের আড়াই মিনিটের মাথায় প্রচন্ড বিস্ফোরণে ভেঙে পড়ে আলফা রকেটটি।

আরো পড়ুন-মঙ্গলে এয়ারক্রাফট পাঠাবে চীন! নাসার সাথে টেক্কা দিতে চীনের বড় পদক্ষেপ

ড্রিম সংস্থার তরফ থেকে একটি বিবৃতিতে জানানো হয়- “আমরা প্রতিটি পরীক্ষা ভালো ভাবে করেছিলাম। নিখুঁত হবে প্রতিটি ধাপ পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর এই রকেট উৎক্ষেপণের জন্য প্রস্তুতি নেওয়া হয়। কিন্তু এভাবে ভেঙে পড়ার কারণ আমাদের অজানা“। মহাকাশে এই ভয়াবহ দুর্ঘটনায় ক্ষতির পরিমাণ অনেকটাই বাড়তে পারত। বিশেষজ্ঞদের দাবি বর্তমানে উন্নত দেশগুলির বেসরকারি সংস্থা যথাযথ মান ছাড়াই রকেট তৈরিতে উৎসাহিত হয়ে পড়েছে। যে কারণে এই ধরনের দুর্ঘটনা বেড়েই চলেছে প্রতিনিয়ত।

Leave a Reply