জম্বির দেশ: এই দেশে এখনও জম্বি দেখা যায়

জম্বির দেশ: আমরা জম্বির কথা অনেকেই জানি, সিনেমাতে আমরা অনেকে সময় জম্বি দেখছি। কিন্তু বাস্তবে কি জোম্বি আছে, আমাদের অনেকরই মনেহতে পারে। তাদের জন্য বলেরাখি ক্যারিবিয়ান দেশ হাইতি তে এখনো জম্বি দেখাযায়।

তবে এই জম্বি আমাদের কল্পনার থেকে কিছুটা আলাদা। এখানে জম্বি পাওয়ার কারণ জানলে আপনার অবাক হবেন। ক্যারিবিয়ান হাইতি একটি  অনুন্নত দেশ। এখানে শিক্ষিতের হার খুবই কম এবং এই দেশের বাসিন্দারা কালাজাদুর তে বিশ্বাস করে। এখানকার মানুষেরা এটা বিশ্বাস করে যে, যারা এই কালজাদু করে তারা সর্ব শক্তির অধিকারী। সেই কারণে সেই দেশে যারা কালো জাদু করে তান্ত্রিকরা এর সুযোগ নেয়। হাইতি অনুন্নত দেশ হওয়ায় এই দেশে যারা রোগ-ব্রাধি তে আক্রান্ত হয় তারা সেই সব তান্ত্রিকদের কাছে যায় সুস্থ হওয়ার জন্য।

আরও পড়ুন – যমজ বাচ্চার গ্রাম কেরালা। ৫০০ বেশি যমজ বাচ্চা আছে এই গ্রামে

আরো পড়ুন – পৃথিবীতে মোট কয়টি দেশ আছে ২০২৩

কিন্তু সেই সব তান্ত্রিকরা এর সুযোগ নেয়, তারা অসুস্থ ব্যাক্তিদের সুস্থ করার নাম করে বিভিন্ন ধরনের জরিবুটি খাইয়ে তাদের স্মৃতি-শক্তি নষ্ট করে দেয় এবং নিজেদের বসে নিয়ে আসে। তাদের দিয়ে তান্ত্রিকরা নিজেদের কাজকর্ম করায়, একপ্রকার নিজেদের গোলাম বানিয়ে ফেলে।

অনেক সময় তান্ত্রিকরা জরিবুটি খাইয়ে অসুস্থ ব্যাক্তি দের কোমাই পাঠিয়ে দেয়, তারপর পরিবারের লোক যখন তাকে মৃত ভেবে কবর দিয়ে দেয়, তারপর তান্ত্রিকরা গিয়ে কবর খুরে কমায় পাঠানো ব্যাক্তিকে নিজেদের বাড়ি নিয়ে গিয়ে জম্বি তৈরি করে নিজেদের দাস বানায়।

স্মৃতি-শক্তিনা থাকার ফলে তাদের আর কিছুই মনে থাকে না। এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসে “নাসৃষ” নামক এক ব্যাক্তি যখন তার ভাইয়ের সামনে আসে, তার ভাই তাকে চিন্তে পেরে তাকে ঘরে নিয়ে যায় এবং তাকে সুস্থ করে তোলে, সুস্থ হওয়ার পর নাসৃষ জানায় ২০ বছর ধরে এক তান্ত্রিক তাকে জম্বি বানিয়ে নিজেদের কাজ-কর্ম করাত।

তিনি আরোও বলেন তার মত আরও অনেকে এরকম ছিল। ঘটনাটি শুনতে অবাক লাগলেও সত্যি যে আজও শতশত জম্বি এই দেশে দেখতে পাওয়া যায়।
                 

Leave a Reply