চকলেট কিভাবে তৈরি হয়। চকলেট তৈরির ইতিহাস

চকলেট কিভাবে তৈরি হয়: চকলেটের কথায় মুখে জল আসে সবারই। খুব কম লোকই আছে যাদের চকলেট পছন্দ নয়। ছোট থেকে বড় সবারই পছন্দ চকলেট। চকলেট মেয়েরা একটু বেশি ভালোবাসে। উপহার দেওয়ার জন্য এটি ব্যবহার করা হয়। এই কারণেই সারা বিশ্বে খাদ্য বস্তু হিসেবে জনপ্রিয় হয়েছে। সারাবিশ্বে প্রচুর চকলেট কোম্পানি রয়েছে। তাদের চাহিদা নজরকাড়া। চকলেট এমনই লোভনীয় খাদ্যে যার জন্য বাচ্চারা রোজই দাঁত খারাপ হয়ে যাওয়ার বকুনি খেয়ে থাকে। অনেকের ভালোবাসার সম্পর্কে আরেকটু মিষ্টতা যোগ করে এই চকলেট। সকলের প্রিয় হলেও অনেকেরই এই চকলেট তৈরির ইতিহাস জানা নেই।

চকলেট তৈরির উপাদান

চকলেট তৈরি হয় কোকো নামের এক রকম ফলের বীজ থেকে। কোকোর বীজগুলোকে রোস্ট করে গুঁড়ো করা হয় এরপর দুধ বা জলের সাথে সেই গুঁড়ো এবং চিনি মিশিয়ে চকলেট বানানো হয়ে থাকে। চকলেট নামটি নিয়ে নানা মত প্রচলিত আছে। অনেকের মতে চকলেট নামটি মূলত স্প্যানিশ ভাষার একটি শব্দ। কিন্তু বেশিরভাগ তথ্য অনুসারে মনে করা হয় এটি মায়া সভ্যতা এবং অ্যাজটেক সভ্যতা থেকে এসেছে। 

সভ্যতা দুটি মধ্য আমেরিকার অন্তর্গত। অ্যাজটেক এর ভাষা নেহুটাল অনুযায়ী চকলেট কথার অর্থ হল তেতো বা টক। চকলেট এর মূল উপাদান হলো কোকো বীজ। কোকো গাছ আজ থেকে প্রায় ২ হাজার বছর আগে আমেরিকার বৃষ্টি অরণ্য খুঁজে পাওয়া যায়। সর্বপ্রথম চকলেট তৈরি করেছিল মেক্সিকোর এবং মধ্য আমেরিকার মানুষেরা। ১৫২৮ সালে যখন স্পেন মেক্সিকো দখল করে নেয় তখন তাদের রাজা প্রচুর পরিমাণে কোকো এবং চকলেট তৈরির যন্ত্র সামগ্রী স্পেনে নিয়ে যায়। এরপর খুব কম সময়ের মধ্যে স্পেনের ধনী ব্যক্তিদের কাছে চকলেট একটি জনপ্রিয় পানীয় তে পরিণত হয়।

আরও পড়ুন – কৃত্রিম হীরা কিভাবে তৈরি হয়। ভারতে কোথায় হীরে উৎপাদন করা হয়

চকলেট কিভাবে তৈরি হয়, চকলেট তৈরির ইতিহাস

ইতালিও একজন যাত্রী মধ্য আমেরিকার লোকেদের চকলেট তৈরি করতে দেখেন। তিনি তখন তার নিজের দেশ ইতালিতে চকলেট তৈরির পদ্ধতি প্রচার করেন। আর এর ফলে চকলেটের ওপর স্পেনের একাকী অধিকার শেষ হয়। ১৬০৬ সালের মধ্যে ইতালিতে চকলেট বেশ প্রসিদ্ধ হয়ে ওঠে। ১৬১৫ সালে ফ্রান্স প্রথম পানীয় চকলেটের স্বাদ গ্রহণ করে। ফ্রান্সের মানুষেরা এই পানীয় চকলেটকে স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী বস্তু হিসেবে মেনে নেয়। এর পরবর্তী সময়ে ১৬৫০ সালে চকলেট প্রথম ইংল্যান্ডে আসে। 

এই সময় পর্যন্ত সবাই পানীয় হিসেবে চকলেট ব্যবহার করত। একজন ইংরেজ ডাক্তার হেনস্ স্লোনে দক্ষিণ আমেরিকায় ঘুরে আসেন এবং তিনি প্রথম খাদ্য বস্তু হিসেবে চকলেট তৈরি করেন। অবাক লাগলেও এটাই সত্যি তিনি একজন ডাক্তার হয়েও চকলেট তৈরি করেন। মিল্ক চকলেট ক্যাডবেরি তিনি প্রথম বানান। আগে আমেরিকানরা কোকো বীজ গুঁড়ো করে তার মধ্যে ঝাল ও নানা স্বাদের মসলা মিশিয়ে পানিয় বানাত। সর্বপ্রথম ইউরোপীয়রাই তেঁতো ও ঝাল বানানোর বদলে দুধ ও চিনি মিশিয়ে মিষ্টি চকলেট তৈরি করে। চকলেট এর প্রতি ভালবাসা জ্ঞাপন করার জন্য প্রতিবছর ৭ ই্ জুলাই চকলেট ডে পালন করা হয়। চকলেট তৈরির মেশিন সর্বপ্রথম স্পেনের বার্সেলোনাতে বানানো হয়েছিল। কোকোর সন্ধান পাওয়া গেছিল আমেরিকাতে। কিন্তু বর্তমানে পৃথিবীর ৭০ শতাংশ কোকোর উৎপাদন হয় আফ্রিকা মহাদেশে। 

“চকলেট কিভাবে তৈরি হয়। চকলেট তৈরির ইতিহাস”-এ 1-টি মন্তব্য

Leave a Reply