NASA: বিজ্ঞানীদের নতুন খোঁজ, মঙ্গল গ্রহের ভিডিওতে দেখা মিলল বরফ, মাকড়শার মত অদ্ভুত বস্তুর

NASA: মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্র নাসা পৃথিবীর পার্শ্ববর্তী লাল গ্রহের একটি নতুন ভিডিও সামনে নিয়ে এসেছে, যা অবাক করেছে মহাকাশ বিজ্ঞানীদের। পৃথিবীর চেয়ে অনেক গুণ ঠান্ডা মঙ্গলের ভূপৃষ্ঠে নতুন আবিষ্কারের আলো দেখেছেন তারা।

আমাদের সৌরজগতে পৃথিবীর সবচেয়ে কাছে থাকা লাল গ্রহ অর্থাৎ মঙ্গল নিয়ে বিজ্ঞানীদের কৌতূহলের অন্ত নেই এবং যত দিন গড়াচ্ছে এই কৌতুহল যেন বেড়েই চলেছে। মঙ্গল গ্রহে প্রাণের সন্ধান করতে মরিয়া হয়ে পড়েছেন বিজ্ঞানীরা। বহুদিন ধরেই চলছে বিভিন্ন গবেষণা। মঙ্গল গ্রহে জল আছে কিনা, জল থাকলেও সেই জল কি অবস্থায় আছে, সেখানকার জলবায়ু কেমন এইসব নিয়ে বিস্তর আলোচনা ও গবেষণা হয়ে আসছে বহুদিন ধরে। এখনো পর্যন্ত বিজ্ঞানীরা জানতে পেরেছেন এই গ্রহের তাপমাত্রা পৃথিবী থেকে অনেকটাই কম। সাধারণত সেখানকার তাপমাত্রা হয়ে থাকে মাইনাস ৬০° সেলসিয়াস এর কাছাকাছি। যেই তাপমাত্রা শীতকালে পৃথিবীর আন্টার্টিকায় দেখা যায়। এছাড়াও মঙ্গল গ্রহের বায়ুমণ্ডল অনেকটাই পাতলা, পৃথিবীর তুলনায় যেখানে কার্বন ডাই অক্সাইড এর পরিমাণ প্রায় ৯৫ শতাংশ। বিজ্ঞানীরা এমনটাও জানিয়েছেন ওই গ্রহের তাপমাত্রা কখনো কখনো মাইনাস ১২৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত পৌঁছে যায়।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অন্যতম মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্র ন্যাশনাল অ্যারোনটিক্স এন্ড স্পেস এডমিনিস্ট্রেশন (NASA) এর জেট প্রোপালসন ল্যাবরেটরি (JPL) নতুন একটি ভিডিও সামনে নিয়ে এসেছে। JPL দ্বারা লঞ্চ করা নতুন এই ভিডিওটি একটি এনিমেটেড ভিডিও, যেখানে এনিমেশনের সাহায্যে দেখানো হয়েছে মঙ্গল গ্রহের বরফ এবং ঠান্ডার পর্যবেক্ষণ। JPL এর বিজ্ঞানী সিলভাইন ভিডিওতে জানিয়েছেন পৃথিবীর বরফ এবং মঙ্গল গ্রহের বরফের মধ্যে অনেকটা তফাৎ রয়েছে। মঙ্গল গ্রহের বরফ খুঁজে পাওয়া গিয়েছিল ২০০৮ সালের নাসার ফিনিক্স লান্ডার-এর মাধ্যমে এবং সেখান থেকে জানতে পারা গিয়েছিল পৃথিবীর বরফ পাওয়া যায় ভূপৃষ্ঠের উপর এবং মঙ্গল গ্রহের বরফ পাওয়া যায় ভূপৃষ্ঠের নিচে।

আরো পড়ুন – NASA: নাসার টেলিস্কোপে ধরা পড়লো মহাকাশের সবচেয়ে শক্তিশালী বিস্ফোরণ

আমাদের পৃথিবীতে পাওয়া বরফ এবং মঙ্গল গ্রহে পাওয়া বরফের মধ্যে বিজ্ঞানীরা একটি পার্থক্য খুঁজে পেয়েছেন। তারা জানিয়েছেন মঙ্গল গ্রহের বরফ কার্বন-ডাই-অক্সাইড যুক্ত যার তাপমাত্রা প্রায় ১৯০° ফারেনহাইটের কাছাকাছি। যেহেতু মঙ্গল গ্রহে বরফ কার্বন-ডাই-অক্সাইড দ্বারা তৈরি সেই ক্ষেত্রে বরফ গুলি খুবই কঠিন এবং সহজে গলে যায় না, সরাসরি গ্যাস হয়ে বায়ুমন্ডলে মিশে যায়। শুধু এখানেই শেষ নয় তারা এটাও জানিয়েছেন মঙ্গল গ্রহের বরফেও স্ফোটিক পরে। ফিনিক্স লান্ডার দ্বারা মঙ্গল গ্রহের আকাশে একটি লেজার লাইট দিয়ে বরফের স্ফোটিক পড়তে দেখা গিয়েছিল। এছাড়াও মঙ্গল গ্রহে তুষারপাত হতে দেখা যায় তবে সেটি কেবলমাত্র সমতল এলাকায়। মঙ্গল গ্রহ নিয়ে এই গবেষণা কালীন সময়ে নতুন এক অদ্ভুত এবং রহস্যময় তথ্য বিজ্ঞানীদের সামনে এসেছিল। তারা জানিয়েছেন মঙ্গল গ্রহের মাটিতে তারা শুধু বরফ খুঁজে পাননি তারা এমন কিছু বস্তুর দেখা পেয়েছেন যেগুলি কিছুটা গিজার, পাখা, ভাজা ডিম অথবা মাকড়সার মতো দেখতে। তবে বিজ্ঞানীদের দেখতে পাওয়া এই বস্তু গুলি আদতে কি তারা এখনো বুঝতে পারেননি। এই সমস্ত দৃশ্যগুলি বিজ্ঞানীদেরকে মঙ্গল গ্রহের প্রতি আরো অনেক বেশি আকৃষ্ট করে চলেছে।

“NASA: বিজ্ঞানীদের নতুন খোঁজ, মঙ্গল গ্রহের ভিডিওতে দেখা মিলল বরফ, মাকড়শার মত অদ্ভুত বস্তুর”-এ 2-টি মন্তব্য

Leave a Reply