দৈত্যাকার বরফে মোড়া ইউরেনাস নির্গত করছে এক্স-রশ্মি, কি বলছেন বিজ্ঞানীরা

বিজ্ঞানিদের নতুন সমীক্ষা আরো একবার ভাবিয়ে তুলেছে সকলকেই। দৈত্যাকার বরফে মোড়া সৌরজগতের সপ্তম গ্রহ হলো ইউরেনাস (uranus planet)। যার থেকে বেরিয়ে আসতে দেখা যাচ্ছে X-RAY বা এক্স রশ্মিকে। ঠিক যেমনটা বৃহস্পতি এবং শনি গ্রহ থেকে নির্গত হয়। নাসা জানিয়েছে, বিষয়টি আরও বেশি আকর্ষণীয় হওয়ার কারণ এটি সৌরজগতের একমাত্র গ্রহ যেটির পাশাপাশি ঘূর্ণন লক্ষ্য করা যায়।

ইউরেনাস নির্গত করছে এক্স-রশ্মি

আমাদের সৌরজগতের সপ্তম গ্রহ হল ইউরেনাস। যেটি এক্স রশ্মি নির্গত করছে। আপাতত বিজ্ঞানীদের ধারণা ঠিক এমনটাই। এই প্রথম জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা ইউরেনাস থেকে নির্গত এক্স রশ্মী শনাক্ত করেছেন। এই গ্রহটি ‘Sidewayes Planet‘ নামেও পরিচিত। কারণ এটি হলো একমাত্র গ্রহ যেটি নিজের পাশাপাশি ঘোরে।

নতুন এই সমীক্ষায় বিজ্ঞানীরা ২০০২ এবং ২০১৭ সালের চন্দ্র স্পেস টেলিস্কোপ দ্বারা হওয়া পর্যবেক্ষণকে তুলনা করে দেখেছেন। এই সমীক্ষা প্রকাশ পেয়েছে জিওগ্রাফিক্যাল রিসার্চ জার্নালে

আরো পড়ুন – নাসার কিউরিওসিটি মার্স রোভারের নতুন সেলফি, অবাক নেটিজেনরা

চন্দ্র প্রোগ্রামটি নাসার মার্শাল স্পেস ফ্লাইট সেন্টার দ্বারা পরিচালনা করা হয়। যেটি বিজ্ঞানীদের হাবল টেলিস্কোপ টির সাথে পাওয়া সৌরজগতের সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ তথ্য গুলিকে নিয়ে গবেষণা করতে সাহায্য করে।

২০০২ সালের পর্যবেক্ষণকে খুব কাছ থেকে বিশ্লেষণ করে বিজ্ঞানীরা এই এক্স রশ্মির সন্ধান পেয়েছেন। এরপরের ২০১৭ সালের পর্যবেক্ষণকে পাশাপাশি তুলনা করে বিজ্ঞানীরা ইউরেনাস গ্রহের এক্স রশ্মী সম্পর্কে আরো নিশ্চিত হতে পেরেছেন।

সংবাদ মাধ্যমের একটি বিবৃতিতে নাসা জানিয়েছে, ইউরেনাসের এক্স রশ্মি নির্গত করার পিছনে একমাত্র কারণ সূর্য হতে পারে। এটি অস্বাভাবিক কিছু নয়। কারণ বিজ্ঞানীরা ইতিমধ্যেই প্রমাণ পেয়েছেন বৃহস্পতি এবং শনি গ্রহ থেকে নির্গত এক্স রশমির কারণ হলো এই সূর্য। পৃথিবী যেভাবে সূর্যের আলোকে বায়ুমন্ডলে ছড়িয়ে দেয় তার থেকে এটির খুব বেশি পার্থক্য নেই।

শনি গ্রহের ক্ষেত্রে বিজ্ঞানীরা বলেন, এই গ্রহে থাকা বলয়টি নিজেই এক্স রশ্মী তৈরি করে। ইউরেনাসের ক্ষেত্রেও এমনটি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। কারণ এই গ্রহের বলয়ে থাকা চার্জ যুক্ত কণা যেমন ইলেকট্রন ও প্রোটন কণার সংঘর্ষে এক্স রশ্মি নির্গত হয় এই গ্রহ থেকে। যদিও এক্ষেত্রে বিজ্ঞানীরা সম্পূর্ণ সহমত হতে পারছেন না। এক্স রশ্মীর কারণ হিসেবে ইউরেনাসে থাকা আরোরাকে কারণ হিসেবে দেখছেন অনেকেই।

“দৈত্যাকার বরফে মোড়া ইউরেনাস নির্গত করছে এক্স-রশ্মি, কি বলছেন বিজ্ঞানীরা”-এ 1-টি মন্তব্য

Leave a Reply